লজ্জা নয় জানতে হবে, হস্ত মৈথুনের কুফল, বর্তমানে যুবসমাজ ধ্বংসের দিকে।

লাইফস্টাইল

লিটন প্রামানিক, কোনাবাড়ী গাজীপুর, প্রতিনিধিঃ                                                                               লজ্জা নয়, জানতে হবে । তরুণ প্রজন্মের জন্য অত্যাধিক একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল হস্ত মৈথুন।
বিয়ের আগে না জানার কারণে ছেলে/মেয়ে এক বদ অভ্যাসে জড়িয়ে পরে । আমাদের স্কুল কলেজ গুলোতে  সব বিষয়ে বলা হলেও এসব বিষয়ে বলা হয় না বললেই চলে । 
তাই এই বিষয়ে না জানার কারণে অনেক ছেলে মেয়ে নিজের জীবনকে ধ্বংসের মুখে ঠেলে দিচ্ছে । 
Calculation করে দেখা গেছে বর্তমানে অবিবাহিত ছেলেদের মধ্যে ৮০% আর মেয়েদের মধ্যে  ৬৫% এই বদ অভ্যাসে জড়িত ।যেটা কে আরবিতে বলা হয় নিকাহ বিল ইয়াদী( অর্থাৎ হাতের সাথে বিবাহ করা ) ।
ইংরেজিতে বলা হয় Masturbation আর শুদ্ধ বাংলায় বলা হয় হস্তমৈথুন ।যেটাকে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হারাম বলেছেন এবং এর শাস্তি ভয়ানক হওয়ার কারণে কিয়ামতের দিন  আঙ্গুলের পেট গুলো থেকে বাচ্চা অর্ধেক বের হয়ে থাকবে । বাকিটা ফেরেস্তারা টেনে বের করবেন ।                   অন্য আর জায়গায় বলা হয় এটার কারণে যে Sparm বাহির হয় ,, কোন কোন ডাক্তার বলে থাকেন একবারের Sparm এ বিশ লক্ষ শুক্রাণু থাকে । সেই শুক্রাণু গুলো থেকে একটি ডিম্বাণুতে গিয়ে বাচ্চা জন্ম হয় ।                                                       তো এই অপচয়ের কারনে আল্লাহ তা’আলা বলবেন যে, এই শুক্রাণু গুলোর জীবন দাও !যখন দিতে পারবে না তখন তাকে কঠিন শাস্তি দেওয়া হবে ।                                            এটাতো গেলো মৃত্যুর পরের কথা কিন্তু কেউ যদি ছাড়তে না পারে তাহলে তাকে দুনিয়াতে অনেক পস্তাতে হবে ।
এটা করার কারণে ছেলে মেয়েরা কি কি সমস্যা গুলোর মধ্যে পড়ে তা নিচে আলোচনা করা হলঃ
(১) বিয়ে করতে পারবে না(২) বিয়ে করলেও স্ত্রীর হক আদায় করতে পারবে না Sparm এ শুক্রাণু রয়েছে তা শেষ হয়ে যাবে ।যার ফলে সন্তানের বাবা হতে পারবে না ।
(৩) Panis অস্বাভাবিক মোটা /চিকন হয়ে যাবে ।Panis আর দাড়াবে না ।
(৪) Sparm একেবারে পাতলা হয়ে যাবে যার ফলে প্রসাব করতে গেলে আগে/পরে  Sparm বের হবে । (৫) Panis লুজ হয়ে যাবে যার ফলে দৌড় দিলেও প্রস্রাব বের হয়ে আসবে ।
(৬) আর অতিরিক্ত করার কারণে সর্বশেষ যেটা হবে প্রস্রাব করতে গেলে আর প্রস্রাব আসবে না বরং রক্ত আসবে ।
#মেয়েরা যেই সমস্যার সম্মুখীন হবে (১) বিয়ের পর স্বামী সন্দেহ করবে যে বিয়ের আগে কোন পুরুষের সাথে শারীরিক সম্পর্ক করছে হয়তো ।
(২) কেননা এর দ্বারা virgin নষ্ট হয়ে যায় 
(৩) Period অস্বাভাবিক হয়ে যাবে ।
(৪) বন্ধ্যা হয়ে যাবার সম্ভাবনা রয়েছে ।
(৫) Glans লুজ হয়ে যাবে যার ফলে স্বামীকে তৃপ্তি দিতে পারবে না ।
(৬) আর ছেলে/মেয়ের উভয়ের যেই সমস্যা গুলো হবে তা হলোঃ মাথ্যা এবং কমরে ব্যাথা করবে ।
(৭) অল্প বয়সে যৌবন শেষ হয়ে যাবে ।
(৮) চেহারার সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যাবে ।
(৯) রক্ত উৎপাদনের যেই মেসিন রয়েছে তা দূর্বল হয়ে যাবে । ফলে রক্ত উৎপাদন কমে যাবে ।কিডনি দূর্বল হয়ে যাবে । প্রস্রাবে সমস্যা হবে মোটকথা শরীরের প্রত্যেকটা অঙ্গ দূর্বল হয়ে পড়বে ।
(১০) Absence of sex pawer (যৌন দূর্বলতা ) এই রোগে ভুগতে হবে ।
এই গোনাহ্ থেকে বাঁচার উপায়ঃ         (১) কোনো পর্ণোগ্রাফি/ ব্লুফিল্ম দেখা যাবেনা । এটা দেখা হারাম ।
(২) কোনো খারাপ চিন্তা মনে আসতে না দেওয়া ।
(৩) নিজেকে সবসময় কাজকর্মে ব্যস্ত রাখা ।
(৪) বাথরুম/টয়লেটে প্রবেশ করার সময়, শয়তানের ধোঁকা থেকে বাঁচার জন্য দুয়া পাঠ করা । অর্থাৎ টয়লেটে প্রবেশ করার সময় যে দোয়া পাঠ করতে হয় সেটা ।
(৫) সবসময় অজু অবস্থায় থাকা ।
(৬) কোন খারাপ চিন্তা মাথায় আসলে সাথে সাথে ইসতেগফার পড়া ।
(৭) যখন বেশি উত্তেজনা সৃষ্টি হয় তখন আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করা ও দুই রাকাত নফল নামাজ পড়া এবং নির্জনতা পরিহার করা । অর্থাৎ মানুষের সমাগমে থাকলে এ কাজ করার সাহস পাবেনা ।
(৮)  আর যারা অসুস্থ হয়ে পড়বে তাদের  ডাক্তার এর সুপরামর্শ নেওয়া ।                   বিঃদ্রঃ- মুসলিম ভাই ও বোনদের মারাত্মক ক্ষতি থেকে বাঁচার জন্য এই লেখনী । আল্লাহর কাছে দোয়া করি সবাই যাতে এই ভয়ানক গোনাহ্ থেকে বেঁচে থাকতে পারে । আর যারা যুক্তি উপস্থাপন করে হস্তমৈথুনকে বৈধতা দিতে চায় বা বৈধ করতে চায়, তাদের থেকে ১০০ হাত দূরত্ব বজায় রাখবেন।                                                                                            কারন এরা নিজেরাও ক্ষতির মধ্যে নিমজ্জিত এবং আপনাকেও ক্ষতির সম্মুখীন করতে চায় । এরা নিজেরাও গোমরাহ/বিপদগ্রস্ত, আপনাকেও তাই করে ছাড়বে । কারন এরা নিজেরাই হস্তমৈথুন করে বিধায় সমাজে লোকদের বলে বেড়ায় এটা বৈধ ! আস্তাগফিরুল্লাহ ।তাই এ সমস্ত লোকদের সাথে চলাফিরা বা উঠাবসা করা যাবেনা ।                                     আল্লাহ তা’আলা আমাদের সকল মুসলিম ভাই বোনদেরকে ইসলামের সঠিক বুঝ দান করুন এবং এই গোনাহ্ থেকে বেঁচে থাকার তৌফিক দান করুন । আ-মীন ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *