বাঘার নির্বাহী অফিসার শাহিন রেজা।

রাজশাহী

এম জহুরুল ইসলাম বাঘা পৌর, রাজশাহী। 


করোনা ভাইরাসের এই মহামারিতে জন জীবনেনেমে এসেছে স্থবিরতা। যখন মানুষের ঘর থেকে বের হওয়াটায় ছিল বড় আতঙ্কের। ঠিক তখন মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন। এমনকি জীবনের ঝুঁকি নিয়ে  দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন রাজশাহীর বাঘা উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শাহিন রেজা। তিনি উপজেলা জুড়ে বিভিন্ন শ্রেণী-পেশার মানুষের কাছে এখন অনুকরণীয় মানবিক কর্মকর্তা। এখানে যোগদানের পর থেকেই তিনি একনিষ্ঠ ভাবে সাধারণ মানুষের সেবায় কাজ করে চলেছেন।জনমানুষের স্বার্থে লড়ে যাচ্ছেন যাবতীয় অন্যায়-অবিচারের বিরুদ্ধে। মাঠপর্যায়ে কর্মহীন, অসহায়-হতদরিদ্র মানুষের পাশে রয়েছেন।জানা যায়,  ইউএনও হিসেবে বাঘা উপজেলায় ২৮সেপ্টেম্বর ২০১৭ সালে যোগদান করেন মোঃ শাহিন রেজা। আর দায়িত্ব নিয়েই তিনি উপজেলার মানুষের প্রতি ভালোবাসার হাত বাড়িয়ে দেন। বাল্যবিয়ে ও যৌতুকপ্রথা বন্ধ, অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ, সরকারি জমি উদ্ধার, চাঁদাবাজি বন্ধ এবং মাদক নির্মূলে একের পর এক অভিযান পরিচালনা করেছেন। আর জনহিতকর এসব কর্মকাণ্ড চালিয়ে তিনি এলাকার মানুষের অতি কাছের মানুষ হয়ে উঠেছেন। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইউএনও শাহিন রেজা  বাঘা উপজেলায় যোগদানের পরে ইতিহাস বিকৃতি রোধে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে নিয়ে চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, রচনা প্রতিযোগিতা, মুক্তিযুদ্ধের প্রামাণ্য চিত্র প্রদর্শনীসহ বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন এই কর্মকর্তা।প্রাথমিক শিক্ষার মান উন্নয়নে অবদান রাখার জন্য এবং সততা ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালনে  ইউএনও শাহিন রেজা রাজশাহী জেলার শ্রেষ্ঠ উপজেলা নির্বাহী অফিসার(ইউএনও) নির্বাচিত করা হয়। 
চলমান করোনা দুর্যোগ মোকাবেলায় সামাজিক দূরুত্ব নিশ্চিতের লক্ষ্যে উপজেলার ২টি পৌরসভার ও ৭টি ইউনিয়নের গ্রামগুলোতে লোকজনদের সচেতন করার জন্য নিয়েছেন নানা পদক্ষেপ। আবার করোনা আক্রান্ত ব্যাক্তির বাড়ি বা এলাকা লকডাউন করা। পরিবার বা এলাকাগুলোতে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিজেই বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন খাদ্যসামগ্রী। প্রায় প্রতিদিনই উপজেলার ৭টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভায় প্রধানমন্ত্রীর মানবিক সহায়তা খাদ্যসামগ্রী সঠিকভাবে বিতরণের জন্য স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের সঙ্গে নিয়ে দুস্থ্য- অসহায় কর্মহীনদের হাতে হাতে তুলে দিয়েছেন। উপজেলার কোনো অসহায় লোকজন নির্দিষ্ট নম্বরে কল দিলে নিজেই খাদ্য সহায়তা নিয়ে হাজির হয়েছেন।করোনাকালে ব্যবসায়ীরা যাতে পণ্যের দাম বেশি নিতে না পারেন সে জন্য তিনি উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখেন প্রতিনিয়ত। করোনার বিস্তার রোধে সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়ন করতে প্রতিদিন মাঠে থেকেছেন এবং উপজেলার সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী দের সঠিক ভাবে পরিচালিত করছেন। করোনা ভাইরাস শুরুর দিকে ঘটে যাওয়া নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যে নিয়ে দাম বৃদ্ধির গুজব সৃষ্টিকারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নিয়ে বাজার মনিটরিং করা, খাদ্য বান্ধব কর্মসূচীর চাল বিক্রিতে অনিয়মকারীদের বিরুদ্ধে তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা গ্রহণ সহ নানা পজেটিভ কর্মকাণ্ডে উপজেলা জুড়ে মানবিক ইউএনও হিসাবে পরিচিত পেয়েছেন শাহিন রেজা। বিভিন্ন বাধা উপেক্ষা করে তিনি পদ্মা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধ করেছেন। ইউএনও শাহিন রেজা বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন বাস্তবায়নে আমি মানুষের জন্য কাজ করে যাব। প্রধানমন্ত্রীর প্রতিটি উদ্যোগ সফল করতে এবং পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব শাহরিয়ার আলম স্যারের নির্দেশনায় উপজেলার মানবসেবায় রয়েছি। মানবসেবার ব্রত নিয়েই চাকরিতে এসেছি। আমি এ উপজেলাবাসীর জন্য যেটা করছি, তা আমার দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ থেকেই করছি। তিনি বর্তমানে করোনায় আক্রান্ত হওয়াতে সকলের নিকট দোয়া চেয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *