শ্রীবরদীতে মাকে পেট্রোল দিয়ে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে ছেলে আটক

ক্রাইম রিপোর্ট

মো: আলমগীর হোসাইন শ্রীবরদী-শেরপুর প্রতিনিধি :


শেরপুরের শ্রীবরদীতে মাকে পেট্রোল দিয়ে পুড়িয়ে মারার অভিযোগে ছেলেকে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ১৬ অক্টোবর রাতে শ্রীবরদী পৌর শহরের তাতিহাটি পশ্চিম মহল্লায়। ঘাতক ছেলে ওই মহল্লার সদাগড় ওরফে সদা মিয়ার ছেলে হানিফ (১৪)। এঘটনায় নিহতের ভাই দুলাল মিয়া বাদী হয়ে ১৭ অক্টোবর শনিবার বিকালে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।জানা গেছে, গত ১১ অক্টোবর সকালে মোটরসাইকেল কিনার জন্য হানিফ টাকা চায় মা হনুফা বেগম (৪০) এর নিকট। মা টাকা না দেওয়ায় হানিফ গভীর রাতে ঘুমন্ত অবস্থায় মায়ের শরীরে পেট্রোল ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। মায়ের চিৎকারে বাড়ির লোকজন হনুফা বেগমকে উদ্ধার করে প্রথমে শেরপুর সদর হাসপাতালে ও পরে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। হনুফার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে শেখ হাসিনা বার্ন ও প্লাস্টিক সার্জন ইনস্টিটিউটে প্রেরণ করেন। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৬ অক্টোবর শুক্রবার সকালে হনুফা বেগমের মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই দুলাল মিয়া বাদী হয়ে শ্রীবরদী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে।
শ্রীবরদী থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে হানিফ মিয়াকে গ্রেফতার করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *