শাহজাদপুরে বসতবাড়িতে চোরাই তেলের অবৈধ গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড; দগ্ধ-৩

রাজশাহী

আজিজুর রহমান মুন্না, সিরাজগঞ্জ ঃ সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে বসতবাড়িতে তৈরি একটি চোরাই তেলের অবৈধ গোডাউনে ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। এই অগ্নিকান্ডের ঘটনায় ৩ জন দগ্ধ হয়েছে ও ৮টি ঘর পুড়ে গেছে।

জানাযায়, বুধবার (২১ জানুয়ারী) সকাল ১১টায় উপজেলার হাবিবুল্লাহ নগর ইউনিয়নের রতনকান্দি হাটখোলা বাজার সংলগ্ন মৃত নকির শেখের ছেলে শফিকুলের বাড়িতে চোড়াই তেলের অবৈধ গোডাউনে মবিল আগুনে গরম করার সময় ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। আগুনে মুহুর্তেই ঘরে রাখা ৮ থেকে ১০টি পেট্রোল, ডিজেল, অকটেন ও কেরোসিনের ড্রামে আগুন লেগে যায়। ড্রামগুলো বিকট শব্দে বিস্ফোরিত হয়ে আকাশের দিকে ৬০ থেকে ৭০ ফুট উপরে উঠে আগুন ছড়িয়ে পরে। এতে আশপাশের আরো ৭/৮টি ঘরে আগুন লেগে যায়। আগুন দেখে এলাকাবাসী এগিয়ে এলেও জ্বালানি তেলের ড্রাম বিস্ফোরণ হওয়ার কারণে কেউ আগুন নেভানোর কাজ করতে পারেনি। পরে শাহজাদপুর ফায়ার সার্ভিসে খবর দিলে দ্রæত তারা অগ্নিকান্ডের ঘটনাস্থলে এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ শুরু করে। স্থানীয় বাসিন্দা এনামুল হক হিরা জানান, আমরা বাজার থেকে আকাশের দিকে অগ্নিকান্ডের গোলা বিস্ফোরিত হতে দেখি। তারপর ফায়ার সার্ভিসের গাড়ি এসে আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করে, তারা প্রায় ১ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে। শফিকুলের দুলাভাই আহম্মদ আলী জানান, বাড়ির উঠানে মবিল আগুনে গরম করার সময় সেই আগুন থেকে ঘরে আগুন লাগে। পরে আগুন ছড়িয়ে পরলে শফিকুল ঘরের ভেতর থেকে টাকা উদ্ধার করার জন্য যায়। এসময় শফিকুল আগুনে দগ্ধ হয়, তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এই আগুনের শিখায় আরো দুইজন আহত হয়েছে। তিনি জানান, আগুনে পাচটি বসত ঘর ও ৩ টি রান্নাঘর সম্পূর্ণ পুরে ছাই হয়ে গেছে। আগুনে প্রায় ১২ লক্ষ টাকার ক্ষতি হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ করে জানান, শফিকুল দীর্ঘদিন যাবৎ প্রসাশনের চোখ ফাকি দিয়ে বসত বাড়িতে চোড়াই তেলের অবৈধ গোডাউন করে ব্যাবসা করছে। এই বিষয়ে তাকে অনেকবার নিষেধ করা হলেও সে কোন কর্ণপাত করেনি। ফায়ার সার্ভিসের অগ্নিনির্বাপন দলের টিম লিডার মো. সরোয়ার্দী সরকার জানান, আমরা খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ শুরু করি। প্রায় ১ ঘন্টা চেষ্টার পর আগুন সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রনে আসে। তিনি জানান, তেল জাতীয় পদার্থের কারণে আগুন ভয়াবহ আকার ধারণ করে দ্রুত বিভিন্ন ঘরে ছড়িয়ে পরে এবং এই কারনে নিয়ন্ত্রনে আনতে বেগ পেতে হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *