হিন্দু যুবকের সঙ্গে মুসলিম যুবতীদের বিয়ের স্বাধীনতা দিতে হবে: শেহলা রসিদ

আন্তর্জাতিক সারাদেশ

দিল্লীর জহরলাল নেহরু ইউনিভারসিটির ছাত্রী তথা সাবেক জেএনইউ ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি শেহলা রসিদের মুসলিম মহিলাদের হিন্দু যুবকের সঙ্গে বিয়ের অধিকার নিয়ে করা একটি মন্তব্যে ভারতীয় মুসলিম সমাজে বিতর্কের ঝড় উঠেছে।

শেহলা রশিদ বলেছেন, মুসলিম মহিলা ও যুবতীদের অমুসলিমদের সঙ্গে বিয়ে বা প্রেম করার স্বাধীনতা দিলে তবেই অঙ্কিত সাক্সেনার মৃত্যুর মতো ঘটনা বন্ধ হবে।

লাভ জিহাদ ও অঙ্কিত সাক্সেনার মৃত্যু নিয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে একথাগুলি বলেন তিনি। এভাবেই হিন্দু-মুসলিমদের সম্পর্ক মজবুত হবে বলেও মন্তব্য করেন শেহলা।

শেহলা আরও বলেন, ‘যদি আমরা ভালবাসার জন্য আমাদের দরজা না খুলে দিই, তাহলে হিংসার আগুনে জ্বলারই যোগ্য আমরা। আজকের যুগে মহিলাদের সম্প্রদায় ও ধর্মের নামে বন্দি করে রাখা হচ্ছে।

শেহলা নিজের ফেসবুক ওয়ালে লেখেন, ‘শাফিন জাহান যেভাবে হাদিয়াকে বেছে নেওয়ার অধিকার পেয়েছে, সেভাবে মুসলিম মহিলাদেরও এই অধিকার দেওয়া উচিত।’ হাদিয়া আরও বলেন, স্পেশাল ম্যারেজ এক্ট অনুযায়ী ধর্ম পরিবর্তন না করেও দু’ জন প্রাপ্তবয়স্ক যুবক-যুবতী একসাথে থাকতে পারেন।

কাশ্মিরের শ্রীনগরে জন্ম নেওয়া শেহলা রসিদ একজন জহরলাল নেহরু ইউনিভারসিটির ছাত্রী ও বামপন্তি ধারার রাজনীতির সাথে যুক্ত। বিজেপি, মোদি ও আরএসএসে বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে প্রতিবাদ করায় দেশজুড়ে আগে থেকেই গোটা ভারতে আগে থেকেই পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছেন শেহলা। অতীতে কঠোরপন্তি হিন্দুত্ববাদীদের হুমকির মুখে পড়া এই শেহলা এবার কঠোরপন্তি মুসলিমদের টার্গেট হবেন বলে আশংকা রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *