ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ মাদ্রাসা ছাত্রদের দিয়ে বাথরুমের সেফটি ট্যাঙ্ক পরিষ্কার করানোর অভিযোগ

ক্রাইম রিপোর্ট

মোঃআশাদুল ভূঁইয়া, ঝিনাইদহ জেলা প্রতিনিধিঃ     
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় মাদরাসাতুস সুন্নাহ আল ইসলামিয়া কমপ্লেক্সে রাতে ছাত্রদের দিয়ে বাথরুম পরিষ্কার করানোর অভিযোগ  উঠেছে।বৃহস্পতিবার রাতে ওই মাদরাসার ছাত্র আল মাহমুদের মা রেশমা লস্কার বাদী হয়ে কালীগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ করেন।
অভিযোগে তিনি উল্লেখ করেন, গত ১৮ আগস্ট রাত আনুমানিক ৯ টার দিকে জোর পূর্বক মাদরাসার বাথরুমের হাউজ (সেফটি ট্যাঙ্ক) পরিষ্কার করায় মাদ্রাসার ছাত্রদের দিয়ে। ওই ঘটনার পর থেকে বাচ্চাদের খাওয়া-দাওয়া বন্ধ হয়ে গেছে এবং গায়ে জ্বর আসে। এক পর্যায়ে মাদ্রাসা প্রধান বাচ্চাদের ছুটি দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন এবং ওই ঘটনা কাউকে না বলার জন্য হুমকি দেন। ঘটনার পরদিন এক পর্যায়ে বাচ্চাদের পরিবারবর্গ বিষয়টি নিয়ে মাদারাসা কর্তৃপক্ষের কাছে গেলে এক ছাত্রের অভিভাবককে গলা ধাক্কা দিয়ে বের করে দেন শামীম নামের স্থানীয় এক যুবক।
অভিযোগে তিনি আরো উল্লেখ করেন, বাথরুমের সেফটি ট্যাঙ্ক পরিষ্কারের জন্য মাদরাসা সুপার ইলিয়াস হোসেন, শিক্ষক ইমরান হোসেন ও অমিত মাদরাসার ছাত্র ইমন, লাবিব, সিয়াম, তামিম, আল মাহমুদসহ প্রায় আরও ৫ জনকে দিয়ে এই কাজ জোরপূর্বক করান। তিনি এই ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থার দাবি করেন।যাহাতে এমন ঘটনা আর না ঘটে।
এ বিষয় কালীগঞ্জ থানার ওসি,  মাহফুজুর রহমান মিয়ার কাছ জানতে চাইলে তিনি জানান।  এ ঘটনায় মাদ্রাসা ছাত্রের অভিভাবকের একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *