বোদায় হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন 

রংপুর
মোঃ বাবুল হোসেন পঞ্চগড় :
 পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় জমি সংক্রান্ত জেরে খোরশেদুর রহমান চৌধুরী বাবলা (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে হত্যায় দায়ের করা মামলায় আসামীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে নিহতের পরিবার। রোববার (০২ মে) দুপুরে বোদা উপজেলার বাসষ্ট্যান্ড এলাকায় এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে নিহতের ছেলে লাতু চৌধুরী। এসময় সংবাদ সম্মেলনে লাতু চৌধুরী লিখিত বক্তব্য পাঠ করে জানান, গত বুধবার (২১ এপ্রিল) আমার বাবা খোরশেদুর রহমান চৌধুরী বাবলা তার নিজ বাসার সামনে ছিলেন। এসময় দুপুরে আমার বাবার সৎ ভাই বোদা পৌর সভার ওর্য়াড কাউন্সিলর সফিকুল ইসলাম কেবলা ও রফিকুল রহমানের পরিবারের সদস্যদের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে প্রথম দফা ঝগড়া হয়। পরে বিকেলের দিকে বাবার সৎ ভাই কাউন্সিলর সফিকুল ইসলাম কেবলা বাসায় এসে আবারও আমার বাবাকে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে তার সৎ মায়ের ছেলেরা পাঁচ জন ভাইস্তা/ভাইস্তি ও দুই জন বৌমা কথা কাটাকাটি শুরু করলে বাবার উপর তারা চড়াও হয়ে নির্মম ভাবে আমার বাবার উপর হামলা চালায়। হাতাহাতির এক পর্যায়ে বাবাকে তারা কিল ঘুষি লাথি মেরে পাশে থাকা বালুর স্তুপে ফেলে বাবার মুখ বালুর তলায় চিপে ধরে অমানবিক মারধর করার এক পর্যায় পরে থাকার পরেও তারা ক্ষান্ত হননি। আমার বাবার দেহ মাটিতে পরে থাকায় তাৎক্ষনিক তাকে উদ্ধার করে বোদা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবাকে মৃত ঘোষণা করেন। আজ আমি ও আমার ভাই বোন হয়েছি পিতা হারা (এতিম) আমার মা হয়েছে স্বামী হারিয়ে বিধবা, খোদেজা বেওয়া ছেলেকে হারিয়ে বাড়িতে চলছে কান্নার রোল, আজ পুরো পরিবার হয়েছি অসহায়। বাবার হত্যাকারিদের আইনের আওতায় এনে এর সুষ্ঠ বিচার দাবী করছি। ২২ এপ্রিল বোদা থানায় উপস্থিত হয়ে মামলা দায়ের করা হলেও আজও পুলিশ এখনো আসামীদের গ্রেফতার করছে না। এদিকে জানতে পারি আমার বাবার ময়না তদন্তের রিপোর্ট নাকি আসামীরা মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে তদন্ত রিপোর্ট টি আমাদের বিপক্ষে যায় সে ব্যবস্থা করছেন। তাই আমি ও আমার পরিবার আপনাদের সহযোগীতা চেয়ে আসামীদের গ্রেফতার করতে সহযোগিতা কামনা করছি। এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থেকে আসামীদের গ্রেফতারসহ হত্যার বিচারের দাবী জানান নিহত খোরশেদুর রহমান বাবলার মা খোদেজা বেগম ও ভাই রাশেদুর রহমান বাবু প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *