চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধ হুমকির মুখে, বন্যার আশঙ্কা

সারাদেশ
নাজমুল হোসেন, স্টাফ রিপোর্টার :
বর্ষার বৃষ্টিতে চাঁদপুরের পদ্মা, মেঘনা ও ডাকাতিয়া নদীর পানি বৃদ্ধি পেয়েছে। এতে করে চাঁদপুর শহর রক্ষা বাঁধ হুমকির মুখে রয়েছে। এছাড়া প্রচুর বৃষ্টিপাতের কারণে নদীর পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় বন্যার আশঙ্কা রয়েছে বলে জানায় পানি উন্নয়ন বোর্ড।
সোমবার বিকেলে লঞ্চঘাট এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, পদ্মা, মেঘনা ও ডাকাতিয়ার মিলনস্থলের পাশ দিয়ে শহর রক্ষা বাঁধ ঘেঁষে নদীতে তীব্র স্রোত সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে স্রোত ঠেলে লঞ্চসহ নৌযান চলাচল মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে।
স্থানীয় বাসিন্দা রফিক শেখ, জালাল মিজি, রহমান তপাদারসহ কয়েকজন জানায়, বর্ষাকালে চাঁদপুরের পদ্মা, মেঘনা নদী উত্তাল থাকে। তীব্র স্রোতে পুরান বাজার এলাকার মন্দিরের সামনের স্থানের অনেকাংশের ব্লক দেবে গেছে। এর পূর্বেও এখানে কয়েকবার জিও ব্যাগ ফেলা হয়েছে। ভাঙ্গন বা ফাটল দেখা দিলেই এখানে শুধু জিও ব্যাগ ফেলা হয়, স্থায়ী সমাধান করা হয় না। এতে করে আমরা সবসময় ঝুঁকিতে থাকি।
এ বিষয়ে চাঁদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী রেফাত জামিল বলেন, পুরান বাজারে ব্লক দেবে যাওয়ার খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। ইতোমধ্যে আমরা বাঁধের নতুন বাজার ও পুরান বাজার এলাকা ভাঙনের হাত থেকে রক্ষাকল্পে একটি প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে দাখিল করেছি। তাছাড়া ক্ষতিগ্রস্থ স্থানটি চিহ্নিত করে সার্ভে শুরু হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্থ স্থানে বালিভর্তি জিও ব্যাগ ফেলা হচ্ছে এবং পাশাপাশি ব্লক ডাম্পিংয়ের কাজও চলছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় আমাদের কাছে ৩ হাজার বালি ভর্তি বস্তা, ১৩ হাজার সিসি ব্লক মজুদ রয়েছে। তবে চাঁদপুরে বন্যার আশঙ্কা রয়েছে।
বিআইডব্লিউটিএ চাঁদপুরের উপ-পরিচালক এ. কে. এম. কায়সারুল ইসলাম বলেন, চাঁদপুর-ঢাকা ও বরিশাল-চাঁদপুর-ঢাকা যাত্রীবাহী লঞ্চগুলোকে অত্যন্ত সতর্কতার সঙ্গে চলাচল করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। মেঘনা ও পদ্মায় পানি বৃদ্ধি পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে স্রোতের তীব্রতাও বৃদ্ধি পেয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *