আশুলিয়ায় প্রতারনা মামলার ওয়ারেন্টভূক্ত আসামি ইব্রাহিম গ্রেফতার

ক্রাইম রিপোর্ট
রিপোর্টার: মোঃ মনির হোসেন: সাভারের আশুলিয়ার প্রতারনার অভিযোগে ওয়ারেন্টভূক্ত আসামির ইব্রাহিমকে (৪৮) কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় আর দুই আসামি ঈমাম হোসেন ও রিফাত হোসেন পলাতক রয়েছে। 
শুক্রবার (২৪ জুন ) বিকেল সোয়া ৬টার দিকে আশুলিয়ার শ্রীপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
গ্রেফতার ইব্রাহিম উত্তর খান মৈনারটেকের হোসেন আলীর ছেলে। এ ঘটনায় ইব্রাহিমের ছেলে প্রতারক রিফাত ও ঈমাম হোসেন পলাতক রয়েছে। 
এ ব্যাপারে সাধারণ ডায়েরীর বাদী প্রতারণার শিকার আওলাদ হোসেন বলেন, আমাদের কোম্পানি আরজেএইসএস এর আমি চেয়ারম্যান ছিলাম। ইব্রাহিম ছিলেন এমডি ও তার ছেলে রিফাত ছিলেন হিসাব রক্ষক। সেই সুবাদে আমাদের বাইপাইলের পাইকারী মার্কেটের দোকান জামানতের টাকা ও দোকান ভাড়া নিয়ে লুকোচুরি করে। বিষয়টি নিয়ে আমরা চাপ দিলে মার্কেটের সকল কাগজপত্র ও টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়। পরে তাদেরকে খোঁজ করে না পেয়ে আমি আইনের আশ্রয় নেই। থানায় একটি জিডি করি তাদের নামে। সেই জিডি কোর্টের মাধ্যমে গিয়ে ওয়ার্ডেন্ট জারি হয়। শুনেছি সেই ওয়ারেন্টের ঘটনা ইব্রাহিম গ্রেফতার হয়েছে। 
এ ব্যাপারে আশুলিয়া থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শাহিন মিয়া বলেন, শুক্রবার বিকেলে ইব্রাহিম নামের এক ওয়ারেন্টভূক্ত আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে থাকে থানায় হস্তান্তর করা হয়। সকালে তাকে আদালতে প্রেরণ করা হবে।
এর আগেও ইব্রাহিমের প্রতারণার শিকার হন আল জহির পাইকারী কাপড়ের মার্কেটের মালিক মজিবর  রহমান। তিনি বলেন, দীর্ঘ ৩-৪ বছর আগে সে আমার মার্কেটের দায়িত্বে ছিল। সে সময় তিনি আমার মার্কেটের প্রায় ৪০ লাখ টাকা আত্মসাৎ করলে তাকে আমরা মার্কেট থেকে বের করে দেই। শুনেছি প্রতারক চক্র আরো অনেকের টাকা মেরে প্রতারনা করেছেন বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.