শ্রীপুরে ভাঙ্গা রাস্তা সংস্কার না করায় ভোগান্তিতে সাধারণ মানুষ।

ঢাকা

রফিকুল ইসলাম, শ্রীপুর প্রতিনিধি।

গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার নিজমাওনা গ্রামের উপর দিয়ে একমাত্র পাকা রাস্তাটির চরম বেহাল অবস্থা। যে রাস্তাটি ২নং গাজীপুর ইউনিয়নের গাজীপুর বাজার হতে নিজমাওনা গ্রামের মধ্য দিয়ে সরাসরি কালমেঘা সখিপুর হয়ে টাংগাইল চলে গেছে। এই অঞ্চলের জন্য এই রাস্তাটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই রাস্তার উপর দিয়ে ছোট থেকে ভারী যানবাহন সর্বদায় চলাচল করে থাকে। মাওনা চৌরাস্তা, শ্রীপুর,গাজীপুর এবং ঢাকাসহ বিভাগীয় শহরগুলোতে ব্যবসাবাণিজ্য করার জন্য এই অঞ্চলের সাধারণ মানুষ এই রাস্তাটিই ব্যবহার করে থাকে। ইতিমধ্যে রাস্তার দু’পাশে বেশ কয়েকটি শিল্প-কারখানা গড়ে উঠেছে। অন্যদিকে পোল্ট্রি ফার্ম, ডেইরি ফার্ম এর অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ অঞ্চল হিসাবে ইতিমধ্যেই সুনাম অর্জন করেছে নিজমাওনা গ্রাম। কৃষি খামার,কৃষি পণ্য রপ্তানিতেও পিছিয়ে নেই এই গ্রামের মানুষ। ডিজিটাল যুগে অল্প সময়ে অধিক কর্ম করতে অভ্যস্ত সাধারণ মানুষ ভাঙ্গা রাস্তা সংস্কার না করার কারণে সময়ের সাথে তালমিলিয়ে চলতে পারছে না। ফলে ক্ষতির সম্মুখীন সাধারণ মানুষ। মরার উপর খারার ঘাঁ। তেলের দাম বৃদ্ধিতে এমনিতেই ভাড়া বেশী। অন্যদিকে ভাঙ্গা রাস্তা। অতিসহজেই অনুমান করা যায় এই অঞ্চলের সাধারণ মানুষ কি ভাবে আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন। 
সড়জমিনে গিয়ে দেখা যায় নিজমাওনা মাক্কির মোড় হতে গাজীপুর বাজার পর্যন্ত ৫৯ স্থানে রাস্তা ভাঙ্গা। লক্কর-ঝক্কর করে যানবাহন চরছে। পশ্চিম নিজমাওনা জগার বাইদে দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটি ভাঙ্গা। রাস্তার এপার-ওপার জুড়ে গভীরভাবে রাস্তাটি ভাঙা। অটোরিকশা,ইজিবাইক, ট্রলি, সি,এন,জি সহ অন্যান্য যানবাহন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলছে। ইসমাইল এর মোড় হতে গাজীপুর বাজার পর্যন্ত রাস্তাটি দু’পাশ থেকে ভেঙে মাঝ খানে মেঠু পথে রুপান্তরিত হয়েছে। দেখ-ভাল করার মত কেউ নেই। এ বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শামসুল আলম প্রধান এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন- নিজমাওনার কার্পেটিং রাস্তাটি আমি চিনি। এই রাস্তাটি এলজিআরডির আওতায়। রাস্তাটি সংস্কারের জন্য আমরা প্রস্তাব দিয়েছি। আশা করছি আগামী ১(এক)বছরের মধ্যে সংস্কারের কাজ হবে। 
মাক্কির মোড় হতে বড় চালা হয়ে পুটিমারার রাস্তা বিষয়ে উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শামসুল আলম প্রধান বলেন এই রাস্তাটি এখনো টেন্ডর হয়নি। তবে আগামী ১(এক) বছরের মধ্যে আমরা অনেক রাস্তায় কার্পেটিং করব ইনশাআল্লাহ। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অটোরিকশা চালক বলেন পেটের দায়ে গাড়ি চালাতে হয়। ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে হালকা-পাতলা গাড়ি চালানো যায় না। কখন যে দূর্ঘটনায় পরে যাব তা বলা যায় না। তিনি রাস্তাটির সংস্কারের দাবি করেন। দীর্ঘদিন ধরে রাস্তাটি ভাঙ্গা থাকার কারণে জনদূর্ভোগ চরম আকার ধারণ করায় ভোগান্তিতে আছে সাধারণ মানুষ। সাধারণ মানুষের দাবী গাজীপুর বাজার হতে নিজমাওনা মাক্কির মোড় পর্যন্ত রাস্তাটি যেন অতিদ্রুত সংস্কার করা হয়। মাক্কির মোড় হতে ইটের সলিং রাস্তাটি বড় চালা হয়ে পুটিমারা দিয়ে সড়কঘাটা ব্রিজে ওঠেছে। এই রাস্তাটি দীর্ঘদিনের পুরোনো  হওয়ার কারণে যান চলাচলের একেবারে অনুপযোগী। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জনৈক বলেন আমরা আওয়ামী লীগ করি। আর আওয়ামী লীগ সরকার, এমপি এবং উপজেলা চেয়ারম্যান সহ ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বার সবাই আওয়ামী লীগের। ধরতে গেলে অঞ্চলটাই আওয়ামী লীগের। এই রাস্তার করুণ অবস্থা দেখলে দুঃখ হয়। আদিম যুগের মানুষের মত কষ্ট করে জীবন বাঁচানোর তাগিদে সাধারণ মানুষ চলাচল করছে। কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করে জনৈক বলেন মাক্কির মোড় হতে বড়চালার রাস্তাটি অনতিবিলম্বে পাকা করে জনদূর্ভোগ লাঘবে এমপি মহোদয় যেন এগিয়ে আসেন। ৬ষ্ঠ শ্রেণীর এক ছাত্র বাই সাইকেল দিয়ে নিজমাওনা উচ্চবিদ্যালয়ে পড়া-শোনা করে। ভাঙ্গা রাস্তা দিয়ে সাইকেল চালাতে তার ভয় করে। ছাত্র অভিভাবকগণ  সবসময় দূর্চিন্তায় থাকেন। রাস্তাটি পাকা করার দাবী জানিয়েছেন তারা। জন দূর্ভোগ লাঘবে ২নং গাজীপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যানের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি। স্থানীয় সচেতন মহলের দাবী গাজীপুর বাজার হতে নিজমাওনা মাক্কির মোড় এর রাস্তা সংস্কার এবং মাক্কির মোড় হতে বড়চালার রাস্তাটি অনতিবিলম্ব পাকা করনের। 

Leave a Reply

Your email address will not be published.